Asus ProArt StudioBook 16 Review 2022

Asus ProArt StudioBook 16 Review 2022

Asus ProArt StudioBook 16 নিঃসন্দেহে একটি পাওয়ারফুল এবং অত্যন্ত কার্যকরী একটি ল্যাপটপ। ল্যাপটপটির বিল্ড কোয়ালিটি থেকে শুরু করে থারমাল সল্যুশন এবং কানেক্টিভিটি সব দিক দিয়ে এটিকে প্রফেশনাল কাজের জন্য একদম পার্ফেক্ট একটি ডিভাইস বলা যায়। যে কারণে এর নামের সাথে যুক্ত হয়েছে Pro।

স্পেশালি প্রফেশনাল ডিজাইন এবং এডিটিং কাজে সহায়তার জন্য বিশেষ কিছু ফিচার ইমপ্লিমেন্ট করা হয়েছে ডিভাইসটিতে, যে কারনে এর নামকরণ করা হয়েছে স্টুডিওবুক।

শুধুমাত্র নামেই নয়, কাজের ক্ষেত্রেও ডিভাইসটি একদম Pro Level পারফর্মেন্স প্রদানে সক্ষম। নিচে ল্যাপটপটির হার্ডওয়্যার কনফিগারেশন এবং ইউনিক ফিচারস গুলো তুলে ধরা হলো।

Pre review discussion

বর্তমান সময়ে ব্যবহারকারীদের চাহিদা এবং সুবিধার দিকে লক্ষ্য রেখে ল্যাপটপ ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানিগুলো নির্দিষ্ট কাজের জন্য ডেডিকেটেড বিল্ড ডেস্কটপ এবং ল্যাপটপ তৈরীর দিকে এখন বেশি মনোযোগী।

কন্টেন্ট ক্রিয়েশন, গ্রাফিক্স ডিজাইন, ভিডিও এডিটিং, 3D, এনিমেশন ক্রিয়েশন ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় এসব ডেডিকেটেড বিল্ড ল্যাপটপের চাহিদাও দিন দিন বেড়েই চলেছে।

গ্রাহকের সুবিধার্থে এ ধরনের ল্যাপটপ এর নামের সাথে নির্দিষ্ট ট্যাগ ব্যবহার করা হয়ে থাকে যেনো ডিভাইসটির বিশেষত্ব সহজেই বোঝা যায়।

ASUS ProArt StudioBook 16 ল্যাপটপটির নামের দিকে লক্ষ্য করলেই বোঝা যায় যে এটি প্রফেশনাল আর্টিস্টদের জন্য তৈরী করা হয়েছে।

এছাড়াও প্রফেশনাল ডিজাইন এবং এডিটিং কে সহজ এবং নির্বিঘ্ন করার জন্য এতে এমন কিছু ইউনিক ফিচার ইমপ্লিমেন্ট করা হয়েছে যা এই ল্যাপটপ টি কে একটি পারফেক্ট স্টুডিওবুক হিসেবে উপস্থাপন করে।

ল্যাপটপটি তৈরী করা হয়েছে প্রফেশনাল কন্টেন্ট ক্রিয়েশন, ডিজাইন – আর্ট, অথবা অন্য যে কোন প্রোডাক্টিভ কাজকে সাপোর্ট দেয়ার জন্য।

সুতরাং, আপনি যদি আপনার কাজের জন্য পাওয়ারফুল এবং হাই পারফরম্যান্স কোন ডিভাইস খুজে থাকেন তাহলে আসুস প্রো আর্ট স্টুডিওবুক অবশ্যই সেরাদের মধ্যে একটি হবে।

নিচে এ ল্যাপটপটি রিভিউ পূর্বক এর হার্ডওয়্যার স্পেকস, পারফর্মেন্স, ডিস্প্লে, পোর্ট এবং অন্যান্য বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হলো।

asus proart studiobook 16 2022

হার্ডওয়্যার কনফিগারেশন

মূল রিভিউ অংশে যাওয়ার আগে চলুন এক নজরে দেখে নেয়া যাক এক্সক্লুসিভ এই ল্যাপটপটির হার্ডওয়্যার কনফিগারেশন।

প্রসেসর, গ্রাফিক্স এবং স্টোরেজের তারতম্য ভেদে এখন পর্যন্ত ল্যাপটপটির ৩ টি ভিন্ন ভ্যারিয়েন্ট বাজারে এসেছে।

যেখানে হাই এন্ড স্পেকস ভ্যারিয়েন্টের পাশাপাশি রয়েছে একটি লো বাজেট কনফিগারেশন (৮/৫১২জিবি) ভ্যারিয়েন্ট। সুতরাং আপনার প্রয়োজন এবং বাজেট অনুযায়ী খুব সহজেই আপনি বাছাই করতে পারবেন Asus ProArt StudioBook 16 এর যে কোন মডেল।

নিচে এ ল্যাপটপের ফুল হার্ডওয়্যার কনফিগারেশন তুলে ধরা হলো-

প্রসেসরCore i7-11800H Processor
ডাইমেনশন14.25″ x 10.39″ x 0.78″
ডিসপ্লে16.0-inch 4K (3840 x 2400) OLED 16:10 aspect ratio 0.2ms response time 550nits peak brightness 100% DCI-P3 color gamut 1,000,000:1, VESA CERTIFIED Display
মেমোরী8GB, 16GB, 32GB configurable up to 64 GB
স্টোরেজ512GB, 1TB, 2TB M.2 NVMe PCIe 3.0 Performance SSD
গ্রাফিক্সAMD Radeon Vega 7 Graphics, NVIDIA GeForce RTX 3070, RTX 3060, 3050Ti
কানেক্টিভিটিWi-Fi 5(802.11ac) +Bluetooth 5.0 (Dual band) 2*2
কী-বোর্ডBacklit Chiclet Keyboard with Num-key
ক্যামেরাHD camera with IR function to support Windows Hello With privacy shutter
ব্যাটারি90WHrs, 4S1P, 4-cell Li-ion

উপরের কনফিগারেশন লিস্ট দেখে এটা সহজেই অনুধাবন করা যাচ্ছে, নিঃসন্দেহে Asus ProArt StudioBook 16 ডিজাইনার এবং ক্রিয়েটরদের জন্য আদর্শ একটি ডিভাইস।

কারন এতে কোর-i7 11 Gen প্রসেসর এর সাথে রয়েছে ইন্টিগ্রেটেড AMD Radeon Vega Graphics এবং ডেডিকেটেড NVIDIA GeForce RTX 30 সিরিজের গ্রাফিক্স কার্ড।

ফলে ডিভাইসটি দিয়ে কমপ্লেক্স গ্রাফিক্স এবং এডিটিং, 3D ড্রয়িং, রেন্ডারিং অপারেশন, মাল্টি টাস্ক ইত্যাদি কাজ স্মুথলি সম্পাদন করা যাবে।

asus proart studiobook 16 review

Asus ProArt StudioBook 16 ফিচারস

সাধারণত প্রফেশনাল ডিজাইন এবং রেন্ডারিং অপারেশনের জন্য প্রয়োজন উচ্চ কোরবিশিষ্ট প্রসেসর ও গ্রাফিক্স পাওয়ার।

এছাড়াও যে কোন প্রফেশনাল কম্পিউটিং কাজ যেমনঃ এপ ডেভেলপমেন্ট, ওয়েবসাইট ডিজাইন, 3D কম্পিউটার গ্রাফিক্স ইত্যাদি কাজ সহজ এবং সুষ্ঠভাবে সম্পাদন করার জন্যে হাই কনফিগারড ডিভাইসের প্রয়োজন হয়।

এদিক থেকে Asus ProArt StudioBook টিতে হাই এন্ড কনফিগারেশনের পাশাপাশি উল্লেখযোগ্য কিছু ফিচারসও রয়েছে যা শুধুমাত্র প্রফেশনাল ক্রিয়েটরদের কথা মাথায় রেখেই ইমপ্লিমেন্ট করা হয়েছে।

চলুন দেখে নেওয়া যাক এ ল্যাপটপটির স্পেশাল ফিচারগুলো কি কি,

asus proart studiobook 16 oled review

16″ 4K OLED HDR ডিসপ্লে

Asus ProArt স্টুডিওবুকটিতে সংযোজিত হয়েছে বিশ্বের প্রথম 16” 4K OLED HDR ডিসপ্লে। OLED ডিসপ্লে নিয়ে আলাদাভাবে কিছু বলার নেই, বর্তমান সময়ে ল্যাপটপ ব্যবহারকারিদের পছন্দের তালিকার শীর্ষে অবস্থান করছে OLED ডিসপ্লে যুক্ত ল্যাপটপগুলো।

ব্যবহারকারীদের চাহিদার সাথে সামঞ্জস্য রেখে হাই/মিডিয়াম কনফিগারেশনে OLED ডিসপ্লে সংযুক্ত ল্যাপটপ এখন বাজারে অনেকটাই এভেইলেবল।

তবে ১৬ ইঞ্চিতে OLED HDR ফিচার নিয়ে আসুসের ProArt StudioBook 16 প্রথম। এ ডিসপ্লের কিছু উল্লেখযোগ্য দিক হলো,

  • ৩৮৪০ X ২৪০০ রেজ্যুলেশনবিশিষ্ট ডিসপ্লে টির রেস্পন্স রেট হলো ০.২ মিলি সেকেন্ড
  • এটি একটি ১৬:১০ এসপেক্ট রেশিওর একটি ডিসপ্লে যা প্রফেশনাল কাজের জন্য একদম পারফেক্ট
  • ভিজ্যুয়াল এক্সপেরিয়েন্স নিয়ে কোন কথা হবে না কারণ এটি একটি ১০০% DCI-P3 কালার গামুট বিশিষ্ট ডিসপ্লে
  • কনট্রাস্ট রেশিও 1,000,000:1 এবং HDR mode এ পিক ব্রাইটনেস ৫৫০ Nits যা কন্টেন্ট ক্রিয়েশনের জন্য বেশ সাপোর্টিভ
  • এছাড়াও, এটি একটি VESA DisplayHDR 500 True Black certified ডিসপ্লে যা ডিপ ব্ল্যাক মুভি এবং কন্টেন্ট কেও দারুণভাবে ফুটিয়ে তুলতে সক্ষম
asus proart studiobook

Military-grade durability

প্রোডাক্টিভ ল্যাপটপগুলোতে মিলিটারি গ্রেড ট্যাগ সচরাচর দেখা যায় না, এদিক থেকে ProArt StudioBook 16 ব্যতিক্রম।

দারুণ বিল্ড কোয়ালিটি সম্পন্ন এই সিরিজের ল্যাপটপগুলো US MIL-STD 810H military-grade standard খেতাব প্রাপ্ত।

স্ট্যান্ডার্ড মিলিটারি গ্রেড খেতাব লাভের জন্য ল্যাপটপগুলোকে নির্ধারিত কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে উত্তীর্ণ হতে হয় যেমনঃ ড্রপ টেস্ট, হট এন্ড কোল্ড টেম্পারেচার, ভেজা, নোংরা সহনশীলতা।

মিলিটারি গ্রেড টেস্টে ল্যাপগুলোকে ৪ ফুট উপর থেকে ড্রপ করে ডিউরেবিলিটি টেস্ট করা হয়। সুতরাং, মিলিটারি গ্রেড ল্যাপটপ মানেই এক্সট্রা এডভেন্টেজ।

asus proart studiobook 16 review 2022

ASUS Dial

প্রোফেশনাইল ডিজাইনার এবং কন্টেন্ট ক্রিয়েটরদের কাজকে আরো সহজ এবং গতিশীল করার জন্য ল্যাপটপটিতে যুক্ত করা হয়েছে ব্র্যান্ড নিউ Asus Dial.

এটি একটি গোলাকার Dial যা Adobe এডিটিং এবং ডিজাইন সফটওয়্যার গুলোর সাথে ইন্টিগ্রেশন করার জন্যই তৈরী করা হয়েছে। কি করতে পারবেন এই ডায়ালের মাধ্যমে?

আসুসের মতে, ডায়ালটির মাধ্যমে ৭০+ আলাদা ফাংশন কন্ট্রোল করা যাবে যেমনঃ

  • ব্রাশ সাইজ পরিবর্তন
  • Layer Opacity ঠিক করা
  • Bulk undo actions
  • স্ক্রিন ব্রাইটনেস, ভলিউম
  • ফাস্ট ইফেক্ট এপ্লাই
  • জুম ইন/আউট
  • ইত্যাদি

ডায়ালটি এখন শুধুমাত্র Photoshop, after effects, premier pro, এবং Lightroom classic এ ৪ টি এপ্লিকেশনের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ হলেও শীঘ্রই অন্যান্য সফটওয়্যার এ তালিকায় যুক্ত হবে।

ASUS IceCool Pro

এবার কথা বলবো ডিভাইসটির থারমাল সল্যুশন নিয়ে। সাধারণত প্রোডাক্টিভ কাজে ব্যবহৃত ল্যাপটপগুলোকে অনেক ধকল সামলাতে হয়। যার কারণে পারফর্মেন্স ঠিক রাখতে স্বাভাবিক ভাবেই এ ধরনের ল্যাপটপ গুলোতে নির্ভরযোগ্য থারমাল সল্যুশন থাকা আবশ্যক।

অন্যথায় হিট এবং নয়েজ ইস্যুর কারণে প্রফেশনাল কাজের ধারায় ব্যাঘাত ঘটবে। এসব জিনিস মাথায় রেখেই আসুস তাদের এ প্রো স্টুডিওবুক এর থারমাল সল্যুশন হিসেবে এক্সট্রিম কুলিং ফিচার যুক্ত করেছে যার নাম IceCool Pro।

এ শক্তিশালী কুলিং সিস্টেমের কারণে ল্যাপটপটি ১৩৫ওয়াট টোটাল TDP তেও স্মুথ পার্ফরমেন্স দিতে সক্ষম।

IceCool Pro এর বিল্ডআপে রয়েছে দারুণ চমক! সাধারণত ল্যাপটপ কুল রাখার প্রধান শর্ত হলো যথার্থ Airflow নির্গমন ব্যবস্থা। এদিক থেকে IceCool Pro এর দারুণ ইঞ্জিনিয়ারিং একে সাধারণের চেয়ে ১৬% বেশি Airflow নির্গমনের উপযোগী করে তুলেছে।

এতে ব্যবহৃত হয়েছে Dual 102 aerofoil blade fans যা এখন পর্যন্ত কোন ল্যাপটপে ব্যবহার করা সর্বোচ্চ। এছাড়াও, স্লিম এ ব্লেডগুলি তৈরী করতে ব্যবহার করা হয়েছে side-chain liquid crystal epoxy polymer (SCP) এবং এতে সর্বমোট ৬ টি heat pipe রয়েছে।

এসব কিছু মিলিয়েই বলা যায় যে Asus ProArt Studiobook এর থারমাল সল্যুশন অত্যন্ত কার্যকরী।

কানেক্টিভিটি

হিউজ পরিমাণ কানেক্টিভিটি সাপোর্টেড এ ল্যাপটপটির কানেকশন পোর্ট হিসেবে রয়েছে,

  • 2x USB 3.2 Gen 2
  • 2x USB -C 3.2 Gen 2
  • SD Express 7.0 card reader
  • HDMI 2.1
  • RJ45 LAN
  • DC in
  • Audio Jack

HDMI 2.1 কানেকশন থাকার কারণে এর সাথে আপ টু 8K resolution/120 Hz এক্সটারনাল ডিসপ্লে যুক্ত করা যাবে। এবং SD Experss 7.0 card reader এর মাধ্যমে ১০x স্পিডে ডিভাইস থেকে ডিভাইসে বড় বড় ফাইল ট্রান্সফার করতে পারবেন অনায়াসে।

পরিশেষে

এতসব দারুণ ফিচারস এর পাশাপাশি ProArt StudioBook এ আসুসের রেগুলার ল্যাপটপ ফিচারগুলো তো আছেই যেমন, Real time Ray Tracing, AI-augmented computing process optimization, WhisperMode 2.0 ইত্যাদি।

সবশেষে, প্রফেশনাল ডিজাইন, ভিডিও এডিটিং, রেন্ডারিং সহ অন্যান্য কমপ্লেক্স কম্পিউটিং কাজের জন্য দারুণ কম্প্যাটিবল একটি ডিভাইস।

এছাড়াও আপনি যদি মাল্টি টাস্কিং এর জন্য হাই পারফর্মেন্স ল্যাপটপ খুজে থাকেন, সেক্ষেত্রেও এটিকে প্রাধান্য দিতে পারেন।

MC Solution BD

Leading Retail Laptop Shop in Bangladesh

Leave a Reply

Quit Menu
×
×

Cart